বাংলাদশে জনপ্রশাসনে রদবদল - সিটি২৪বিডি
মঙ্গল. ফেব্রু ১৮, ২০২০

বাংলাদশে জনপ্রশাসনে রদবদল

জনপ্রশাসনে সর্বশেষ রদবদলের মাধ্যমে পাঁচ সিনিয়র কর্মকর্তাকে বদলি করে প্রেষণে (ডেপুটেশন) নতুন পদে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় বুধবার এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আলম আরা বেগমকে নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবং পাট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মো. শামসুল আলমকে জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক করা হয়েছে।

বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের সদস্য (নিরাপত্তা) (অতিরিক্ত সচিব) শাহ মোহাম্মদ ইমদাদুল হক ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবং বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর উপমহাপরিচালক মো. তাজুল ইসলাম প্রতিষ্ঠানটির মহাপরিচালক পদে নিয়োগ পেয়েছেন।

এছাড়া, ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মো. শাহজাহান কুমিল্লায় বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমির (বার্ড) মহাপরিচালক হয়েছেন।

এদিকে, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) নির্বাহী সদস্য মহসিনা ইয়াসমিনকে নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. মো. মাহমুদুল হককে কুমিল্লায় বার্ডের মহাপরিচালক হিসেবে বদলির আদেশ বাতিল করা হয়েছে বলে প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়। সূত্র : ইউএনবি

মৌসুমীকে লাঞ্ছিতের ঘটনায় লজ্জিত মিশা সওদাগর

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন সামনে রেখে বিএফডিসিতে সমর্থকদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময় অভিনেত্রী মৌসুমীকে লাঞ্ছিতের ঘটনায় লজ্জিত মিশা সওদাগর। তারা দুজনই আগামী ২৫ অক্টোবর অনুষ্ঠিতব্য শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। অভিযোগ উঠেছে, মিশা-জায়েদ প্যানেলের সমর্থক বলে পরিচিত ড্যানি রাজ মৌসুমীকে অপমান করেন।

এই নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করতে বুধবার রাতে মিশা-জায়েদ প্যানেল একটি সংবাদ সম্মেলন করেন বিএফডিসিতে। এতে লিখিত এক বিবৃতিতে মিশা বলেন, ‘অত্যন্ত পরিতাপের সাথে জানাচ্ছি যে, গত ১৪ অক্টোবর সন্ধ্যায় শিল্পী সমিতির স্টাডিরুমের সামনে জনপ্রিয় অভিনেত্রী বেগম মৌসুমীর সাথে সমিতির সদস্য ড্যানিরাজের একটি অপ্রীতিকর ঘটনা সংগঠিত হয়। ওই অনাকাংখিত ঘটনার জন্য আমি এবং আমার কার্যকরী পরিষদ অত্যন্ত লজ্জিত, দুঃখিত, মর্মাহত এবং ব্ৰিত। বেগম মৌসুমীর মতো একজন প্রতিথযশা গুণী অভিনয় শিল্পীর সাথে আরেকজন শিল্পী ধৃষ্টতাপূর্ণ বাক্য-বিনিময় কোনো ক্রমেই গ্রহণযোগ্য নয়।’

বুধবার রাতে বিএফডিসিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মিশ-জায়েদ প্যানেল
বিবৃতিতে বলা হয়, ‘নির্বাচন সাময়িক কিন্তু চলচ্চিত্র শিল্পীদের মধ্যে সম্প্রীতি অনাদিকালের জন্য। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি হিসাবে সকল শিল্পীদের সম্মান ও মর্যাদা অক্ষুন্ন রাখা আমি এবং কার্যকরী পরিষদের সকল সদস্যের পবিত্র কর্তব্য। তাই এরূপ ন্যাক্কারজনক ঘটনাকে আমরা শুধু নিন্দাই জানাই না, ভবিষ্যতে যেন এ রকম ব্রিতকর অবস্থার পূণরাবৃত্তি না হয়, তার জন্য আমি এবং আমার কার্যকরী পরিষদ অতীতের ন্যায় ভবিষ্যতেও সদা সজাগ থাকতে বদ্ধপরিকর।’