আগামী মঙ্গলবারের পর বন্ধ হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ! - সিটি নিউজ
বুধ. এপ্রি ১, ২০২০

আগামী মঙ্গলবারের পর বন্ধ হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ!

আগামী মঙ্গলবারের পর বন্ধ হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ!

বছরের শেষ দিনে পূর্বঘোষণা অনুযায়ী বন্ধ হয়ে যাচ্ছে জনপ্রিয় ম্যাসেজিং এপ হোয়াটসএপ। সংস্থাটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে আর কোনো উইন্ডোজ মোবাইলে সেবা দেবে না হোয়াটসএপ। পাশাপাশি পুরোনো মডেলের আইফোন এবং পুরোনো ভার্সনের এন্ড্রয়েডেও বন্ধ করে দেয়া হয়ে হোয়াটসএপ। মঙ্গলবারই (৩১ ডিসেম্বর) এসব ফোনে হোয়াটসএপের শেষদিন। এরপর হোয়াটসএপ ব্যবহার করতে চাইলে নতুন ভার্সনের কোনো বিকল্প নেই।

ম্যাসেজিং সংস্থাটি জানিয়েছে, এ বছরের ৩১ ডিসেম্বরের পর বিশ্বের সব উইন্ডোজ ফোনে বন্ধ হয়ে যাবে হোয়াটসঅ্যাপ। আইওএস ৮ অথবা পুরোনো অপারেটিং সিস্টেমের আইফোনে ২০২০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি থেকে হোয়াটসঅ্যাপের ব্যবহার বন্ধ হবে।

এ ছাড়া অ্যান্ড্রয়েড ২.৩.৭ অথবা তার চেয়ে পুরনো সংস্করণের ফোনে চলবে না হোয়াটসঅ্যাপ। ইতিমধ্যে পুরোনো অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহারকারী গ্রাহকদের জন্য নতুন অ্যাকাউন্ট তৈরি করেছে হোয়াটসঅ্যাপ। এতে পুরনো ফোনে হোয়াটসঅ্যাপ মুছে গেলে আর লগ ইন করার সুবিধা থাকছে না

সম্পর্কিত আরো একটি সংবাদ পড়ুন।

মেসেঞ্জারে শুভেচ্ছা জানিয়ে আলোচিত ম্যাসেজ‘আই অ্যাম সেন্ড ইউ’ লিংকের ক্ষতি থেকে বাঁচতে করণীয়।বর্তমান যুগে ব্যাক্তিগত সব জরুরি তথ্য পাওয়া যায় ফেসবুক একাউন্টে। তাই ফেসবুক একাউন্ট হ্যাক করতে হ্যাকাররাও ব্যবহার করেন নিত্যনতুন পদ্ধতি। এবারের নতুন বছরকে সামনে রেখে ফেসবুকে একটি ম্যাসেজ স্প্যাম করার মাধ্যমে হ্যাক করা হচ্ছে ফেসবুক আইডি। এই ধরনের মেসেজগুলো হয়ে থাকে, wish-you.co, wish4u.co, my-love.co বা এমন লিঙ্ক টাইপের। যা অনেকেই মেসেঞ্জারে ফরোয়ার্ড করছেন অন্য বন্ধুদের। তবে সবচেয়ে বেশি যে লিংকটি ফেববুকে বিভিন্নজনের টাইমলাইনে দেখা গেছে বা ম্যাসেঞ্জারে পাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন সেটি হলো – ‘আই অ্যাম সেন্ড ইউ’ লেখা একটি লিংক।

তথ্য সুরক্ষার জন্য এ ধরনের লিংক ফরোয়ার্ড না করাতে সতর্কবার্তা দিয়েছেন সাইবার বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু তারপরেও না বুঝেই অনেকে এটা শেয়ার করছেন। বিশেষকরে ‘আই অ্যাম সেন্ড ইউ’ লিংকটি ক্ষতিকর বলে জানিয়েছেন তারা। সত্যি বি লিংকটি ক্ষতিকর? এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজির (আইআইটি) সহযোগী অধ্যাপক ড. বি এম মইনুল হোসেন বলেছেন, এতে করে ব্যক্তিগত তথ্য চুরিসহ নানা ধরনের বিপদের শঙ্কা রয়েছে। তাই লিংকটি ক্লিক না করাই শ্রেয়। মইনুল হোসেন আরও জানান- নববর্ষ, জন্মদিন, নানা উৎসবের মত বিশেষ দিনগুলোকে হ্যাকাররা টার্গেট করে এই ধরনের ক্ষতিকারক লিংক পাঠিয়ে থাকে। আর এসব লিংকে ক্লিক করলেই ব্যক্তিগত তথ্যাদি হাতিয়ে নেয় হ্যাকাররা। এমনকি হ্যাকাররা অ্যাকাউন্টের নিয়ন্ত্রণও নিয়ে নিতে পারে বলে জানান তিনি।

দেখা গেছে, ‘আই অ্যাম সেন্ড ইউ’ লিংকটি ক্লিক করলে কয়েকটি ‘অনিরাপদ’ ওয়েবসাইটে ঢুকে যায়। একজন ইন্টারনেট বিশেষজ্ঞ গুগল ব্রাউজারে আলাদা ট্যাবে লিংকটি কপি করে দিয়ে সার্চ দিয়ে এর ইউআরএল বিশ্লেষণ করে দেখেন এই লিংকের পেছনে ক্ষতিকর ফাইল দিয়ে ভরা। এসব ফাইল মোবাইল বা কম্পিউটারের স্বাভাবিক কাজে বাধা সৃষ্টি করে। ডিভাইসকে ধীর গতির করে দেয়। এসব ফাইল ব্যক্তির তথ্য সহজেই হাতিয়ে নেয়। তিনি জানান, লিংকটি ক্লিক করলে এর ইউআরএলের বাদিকে ‘http://wish4u.co/2020/?n=Subashis&t=f’ লেখা দেখা যায়। সেই ইউআরএলে http এর ‘s’ নেই, যার অর্থ হলো লিংক কিংবা সাইটটি নিরাপদ নয়। অন্যদিকে একটি বৃত্তের ভেতর `i’ চিহ্ন দেয়া আছে। এখানে ক্লিক করলে তারা বুঝতে পারবেন কী কী ক্ষতিকর কুকি এরা ব্যবহার করেছে। ইন্টারনেট বিশেষজ্ঞরা বলছেন, লিংকটিতে যারা ক্লিক করেছেন তারা শতাধিক কুকিজ ব্যবহার করা হয়েছে। যারা ক্লিক করেছেন, তারা নিজের অজান্তে এই ওয়েবসাইটগুলোতে চলে গেছেন- .agkn.com, wish-you(dot)co, wish4u(dot)co, my-msg(dot)co, look-me(dot)co, surprise4u(dot)me, hookupgist(dot)com, see-magic(dot)co, mera-style(dot).co, whatsapp-style(dot)co, my-love(dot)co। যেগুলোর আদৌ কোন নিরাপত্তা ইন্টারনেটে পাওয়া যায়নি।

জানা যায়, এদের মধ্যে ‘(dot)agkn(dot )com’ ডোমেইনের ১৩টি কুকি প্রায় ১০ হাজার ওয়েবসাইটে দেখা মেলে। একটি মার্কিন ইন্টারনেট বিশ্লেষণকারী প্রতিষ্ঠান এই ডোমেইনের মালিক। ব্যবহারকারী কত সময় ইন্টারনেটে থাকেন, কী কী সার্চ দেন এ সংক্রান্ত সব ডাটা এরা হাতিয়ে নিয়ে বিভিন্ন বিজ্ঞাপনদাতা প্রতিষ্ঠানের কাছে বিক্রি করে। ‘wish4u(dot)co’ ওয়েবসাইট থেকে ঢুকেছে পাঁচটি কুকি। একটির নাম: __cfduid। উল্লেখযোগ্য এই কুকিটিও একটি মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের। কোন কোন আইপি থেকে ভিজিটর আসছে, এরা সেটি নোট রাখে। এভাবেই প্রতিটি ওয়েবসাইটের আলাদা কাজের কুকি প্রবেশ করেছে আপনার ব্রাউজারে।

তবে ভুল করে যদি ক্লিক করে ফেলেন সেক্ষেত্রে প্রথমেই ডিভাইস থেকে সব কুকি রিমুভ করতে হবে। সব মুছে ফেলতে হবে সব সার্চ হিস্ট্রি। পাশাপাশি অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করতে হবে। গুগলের ক্রোম ব্রাউজার ব্যবহারকারীদের ব্রাউজারের ডান কোনায় তিনটি ডট চিহ্নে ক্লিক করে সেটিংসে যেতে হবে। এরপর একদম নিচে ‘Advanced’ লেখায় ক্লিক করতে হবে। নিচের দিকে ‘Content Settings’ এ ক্লিক করুন। এখানে ক্লিক করলেই ‘Cookies’ অপশন আসবে। সেখানে ক্লিক করে ‘Allwo sites to save and read cookie data (recommended)’ অপশনটি বন্ধ করে দিতে পারেন। যারা ফায়ার ফক্সে ব্যাবহার করে থাকেন তাদের বন্ধ করতে হলে ওপরের ডানদিকে সমান্তরাল তিনটি লাইনে ক্লিক করে সেটিংসে যেতে হবে। সেখানে দুই নম্বরে ‘Content Blocking’ অপশন রয়েছে। এখানে ‘Strict’ অথবা ‘Custom’-এ ক্লিক করে পছন্দমতো নিরাপদ অপশন বেছে নিতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *